শামীমের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ ইউ পি জনতা; শক্তিশালী ভূমিকায় যুবলীগ

সাদেকুর রহমান বাবু | প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০২১ ২২:৫৯; আপডেট: ১৭ জুন ২০২১ ০১:১২

ছবিঃ সংগৃহীত

শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার ঐতিহ্যবাহী ৬ নং পাঠাকাটা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আবু শামীম মমতাজ(শামীমের) নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সহযোগী সংগঠন সহ ইউনিয়নের হাজারো সাধারণ জনতা, তারই প্রমান জনসন্মুখে দেখা মিললো। ১৭ মার্চ বুধবার দুপুরে নকলা উপজেলা যুবলীগ কর্তৃক আয়োজিত বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পাঠাকাটা ইউনিয়ন থেকে যুবলীগ সভাপতি শামীমের স্বল্প সময়ের প্রস্তুতিতে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল ইসলামের সার্বিক সহযোগিতায় তিন (৩) শতাধিক গাড়ী বহরে প্রায় চার হাজার উৎসুক জনতাকে সঙ্গে নিয়ে নকলার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন।

নকলা শহরের বাদাগৈড় এলাকা হয়ে শহর প্রদক্ষিন করে নকলা উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক গোলাম হাফিজ সোহেলের সহযোগিতায় জালালপুর ধানের খলায় এসে গাড়ী বহরটি শেষ হয়। পরবর্তীতে উৎসুক জনতার মাঝে দুপুরের খাবার পরিবেশন শেষে যুবলীগের অনুষ্ঠান সফল করার জন্য গড়েরগাঁও বঙ্গবন্ধু চত্বরের উদ্দেশ্যে মিছিলটি অগ্রসর হয় এবং সেখানে গিয়ে তার পরিসমাপ্তি ঘটে।

জানাগেছে, আবু শামীম মমতাজ ৬ নং পাঠাকাটা ইউনিয়নের বীরমুক্তিযোদ্ধা মরহুম শওকত হোসেনের জ্যেষ্ঠ সন্তানট।  ছোটবেলা থেকেই তার রাজনীতিতে হাতেখড়ি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারন করে অত্র ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন ছাত্রজীবনে। বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড নকলা উপজেলা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি ও পাঠাকাটা ইউনিয়ন যুবলীগের সম্মানিত সভাপতির দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

শামীম বলেন "ছোটবেলা থেকেই আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করেছি। কখনও বেঈমানী করিনাই, সবসময় দলীয় সিদ্ধান্তের ভিতরে রয়েছি। ইউনিয়নবাসীর সকলের সমর্থনে আমি চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছি,দল যদি আমাকে যোগ্য মনে করে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়,তাহলে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে নৌকায় সম্মান ধরে রাখবো ইনশাআল্লাহ।"

তিনি আরও বলেন, বিগত দিনগুলীতে রাজনীতির সাথে আমার সম্পর্ক ছিলো অটুট,আমি আগেও একবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন করেছি,জেলা পরিষদ সদস্য পদে নির্বাচব করে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হওয়া সত্বেও ষড়যন্ত্রকারীদের কাছে ১ ভোটে আমাকে হারতে হয়েছিলো। তবে আমি আশাবাদী দল আমার দিকে সু-নজর দিবে ইনশাআল্লাহ। পরবর্তীতে আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে যুবলীগের জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করার পর সকলকে নিয়ে নিরাপদে বাড়ি ফিরেন।





এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top