শেরপুরে লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে কাজ করছে ছাত্রলীগ

সোহাগী আক্তার | প্রকাশিত: ১২ জুলাই ২০২১ ০০:০১; আপডেট: ২৯ জুলাই ২০২১ ১২:৩০

ছবিঃ সংগৃহীত

শেরপুরে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়ন করতে মাঠে রয়েছে জেলা ছাত্রলীগ। শনিবার (১০ জুলাই) সকাল থেকে শেরপুর শহরের পৌর এলাকাসহ লকডাউনের আওতাধীন সকল এলাকায় লকডাউন বাস্তবায়নে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে মাঠে কাজ করছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

সরকারের নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে এখন পর্যন্ত বিনা কারণে ঘরের বাইরে বের হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। শেরপুর শহরের বিভিন্ন অলিগলি ছাড়াও জেলার প্রতিটি উপজেলায় স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না কেউই। ফলে দিন দিন করোনা পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে।

গতকাল জেলা ছাত্রলীগের এক বিশেষ বৈঠকে লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর হওয়ার বার্তা দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে কঠোর লকডাউন চলাকালীন শেরপুর জেলা প্রশাসনসহ, সেনাবাহিনী ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সামাজিক দূরত্ব রক্ষা, বিনা কারণে বের না হওয়া, হোটেল-রেস্তোরাঁ বন্ধ রাখা, যাতায়াতকারীদের তল্লাশিসহ জরিমানাও করা হচ্ছে। এই করোনা পরিস্থিতিতে কঠোরভাবে মাঠে আছে জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে শেরপুর সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার ফিরোজ আল মামুন জানান, বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হলেই জরিমানাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সরকারি আদেশ অমান্য করে হোটেল-রেস্তোরাঁসহ অন্য ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখলে জরিমানা ও ডাবল জরিমানার পাশাপাশি প্রতিষ্ঠান সিলগালা করাসহ সড়কে ভাড়ায় চালিত যানবাহনের বিরুদ্ধেও নেওয়া হবে ব্যবস্থা।

জেলা ছাত্রলীগে সভাপতি শোয়াইব হাসান শাকিল বলেন, লকডাউন বাস্তবায়নে আমাদের ছাত্রলীগের সব নেতাকর্মীরা মাঠে কাজ করছে। তিনি বলেন, আমরা বাহিরে বের হওয়া সকল ব্যক্তিদের বুঝিয়ে-শুনিয়ে ঘরে ফিরতে বলছি। কারো কোনো সমস্যা থাকলে তাকে সহযোগিতা করার চেষ্টা করছি। তিনি আরো জানান, মাস্ক পরাসহ শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে করোনার সংক্রমণ মাত্রাতিরিক্ত বাড়ছে।

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা বলেন, বিনা কারণে কাউকে বের হতে দিচ্ছি না। এছাড়া, শহরের প্রতিটা প্রবেশমুখে ব্যারিকেড দিয়ে ও কঠোর নজরদারির মধ্যে রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, কেউ ঘর থেকে বের হলে তাকে বুঝিয়ে বাড়িতে ফেরানো হচ্ছে।
তিনি আরো জানান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ শেরপুর জেলা শাখার সভাপতি, শেরপুরে ১ আসনের জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা আতিউর রহমান আতিক এমপি মহোদয় ও শেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, বিজ্ঞ পিপি এডভোকেট চন্দন কুমার পাল মহোদয় এর সার্বিক তত্বাবধানে, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের নির্দেশনা অনুযায়ী বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, শেরপুর জেলা শাখা, শেরপুর জেলা প্রশাসন ও শেরপুর জেলা পুলিশের সাথে সমন্বয় করে লক ডাউন নিশ্চিত করতে শেরপুর পৌর এলকার গুরুত্বপূর্ণ ১২ টি পয়েন্টে কাজ করছে।

শেরপুর জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় শেরপুরে ৩২৬ টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১১৩ জনের। এর মধ্যে সদরে ৭৩, শ্রীবরদী ১১, ঝিনাইগাতী ৩, না‌লিতাবাড়ী ১১, নকলা ১৫ জন। মোট ২২১৯জন, সুস্থ ১১৮১জন, মৃত্যু ৪০জন।





এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top