262

12/05/2021 শেরপুর সদরে স্টেডিয়াম সংলগ্ন রাস্তায় জলাবদ্ধতা, ভোগান্তিতে জনগণ

শেরপুর সদরে স্টেডিয়াম সংলগ্ন রাস্তায় জলাবদ্ধতা, ভোগান্তিতে জনগণ

সোহাগী আক্তার

২৯ জুন ২০২১ ১২:৩০

বৃষ্টি হলেই শেরপুর শহরের গৃদ্দনারায়ণপুর বেপাড়িপাড়া স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকায় পানি জমে ভোগান্তির সৃষ্টি হয়। ড্রেনের নোংরা পানি উঠে সড়ক ডুবে যায়। এসময় নোংরা পানি ঠেলে চলাচল করতে হয় বেশকিছু এলাকার লোকজনের।

গত কয়েক বছর ধরে রাস্তার এই অবস্থা। এইখানে অধিকাংশ ড্রেনগুলো দীর্ঘদিন ধরে পরিষ্কার করা হয়নি । অকার্যকর রয়েছে ড্রেনের পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা। ফলে বৃষ্টি হলেই বিভিন্ন সড়কে সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা। শুধু তাই নয় ড্রেন গুলোর দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা আবর্জনা মিশ্রিত পানি সড়কের ওপর চলে আসে। অনেক জায়গায় আবার এসব ময়লা দুর্গন্ধযুক্ত পানি শেরপুরের সবচেয়ে বড় পাইকারী কাঁচাবাজারের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করে। স্টেডিয়াম সংলগ্ন এবং পাইকারী কাঁচাবাজার রাস্তা হওয়ায় সারাদিনই চলাফেরা করতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। এছাড়াও যান চলাচল ব্যাহত হওয়ার পাশাপাশি দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে স্থানীয় ব্যবসায়ী ও নাগরিকদের। নিয়মিত ড্রেন পরিষ্কার এর পাশাপাশি পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা উন্নতিকরণের দাবি ভুক্তভোগীদের।

এলাকাবাসী মোস্তফা কামাল জানান, দীর্ঘদিন ধরেই এই রাস্তার ড্রেনগুলো পরিষ্কার করা হয়নি। ড্রেন গুলো পরিষ্কার না করায় তা ভরাট হয়ে পানি নিষ্কাশনের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় সামান্য বৃষ্টিতে দোকান সড়ক অলি-গলি পানিতে থৈ থৈ হয়ে যায়। এতে আমাদের পচা দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা আবর্জনা মেশানো পানি মাড়িয়ে চলাফেরা করতে হয়। এ সময় এক কাচাঁমাল ব্যবসায়ী বলেন, বৃষ্টি হলেই এই রোডে পানি উঠে যায়। ড্রেনের এসব নোংরা পানি রাস্তা থেকে সরতে ৪-৫ দিন নাগাদ সময় লাগে। রাস্তায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।


যোগাযোগ: নিউ মার্কেট, শেরপুর টাউন, শেরপুর।
মোবাইল: ০১৭১১ ৫১৫৫৬৫
ইমেইল: [email protected]