শেরপুরে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী অপহরণের চেষ্টা; গ্রেফতার ২

সোহাগী আক্তার | প্রকাশিত: ১ জুন ২০২১ ২২:৩২; আপডেট: ১৭ জুন ২০২১ ০২:৫১

ছবি: সংগৃহীত

শেরপুরে ঘরে ঢুকে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এক ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে অপহরণের চেষ্টার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার রাতে সদর উপজেলার একটি গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আজ মঙ্গলবার দুপুরে ভুক্তভোগী ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে সদর থানায় অপহরণচেষ্টার অভিযোগে মামলা করেন। পরে সদর থানা-পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তার দুজন হলেন শ্রীবরদী উপজেলার জিয়াউল ইসলামের ছেলে মো. মিনহাজ ও সদর উপজেলার আবদুল কুদ্দুসের ছেলে রুমান মিয়া।

মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রায় এক বছর ধরে শ্রীবরদী উপজেলার মিনহাজ ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন। মিনহাজকে বারবার নিষেধ করা হয়। এ নিয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি ওই ছাত্রীকে অপহরণের হুমকি দেন। এরপর গতকাল রাত নয়টার দিকে মিনহাজ তাঁর দুই বন্ধু রুমান ও বাপ্পীকে সঙ্গে নিয়ে ওই ছাত্রীর বাড়িতে গিয়ে তাঁর ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে অপহরণের চেষ্টা করেন। এ সময় ছাত্রীটির চিৎকারে তাঁর স্বজন ও প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মিনহাজ ও রুমানকে আটক করেন। এ সময় মিনহাজ তাঁর হাতে থাকা ছুরি দিয়ে ওই ছাত্রীর বাবাকে আঘাত করতে গেলে স্থানীয় লোকজন তাঁকে মারধর করেন। পরে সদর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করে।

শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন আজ বিকেলে প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে থানায় অপহরণচেষ্টার মামলা করেছেন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার দুজনকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।





এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top