পাট চাষে সবধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে: ডিজি

মো: হারুন অর রশিদ | প্রকাশিত: ২৯ জুলাই ২০২২ ২৩:৫১; আপডেট: ২৯ জুলাই ২০২২ ২৩:৫৮

ছবি: শেরপুর ট্রিবিউন

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে পাট চাষে কৃষকদের আগ্রহী করতে মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (২৯ জুলাই) বিকালে বাংলাদেশ পাট গবেষলা ইনস্টিউিট কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক কেন্দ্রের ব্যবস্থাপনায় রামচন্দ্রকুড়া মন্ডলিয়াপাড়া ইউনিনের বৈাশাখী বাজার সংলগ্ন কালাকুমা গ্রামে এ মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়।  

বাংলাদেশ পাট গবেষলা ইনস্টিউিটের মহাপরিচালক (ডিজি) কৃষিবিজ্ঞানী ড. মো: আবদুল আউয়াল এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: মোকছেদুর রহমান লেবু।

অনুষ্ঠানের শুরুতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কৃষিবিদ ড. মো: মাহমুদ আল হোসেন।

অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, নালিতাবাড়ী উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মো: মওদুদ আহমেদ, নব-নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম খোকা, সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য রহিমা বেগম ও কৃষক মোহাম্মদ আলী। 

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিএস আসাদুজ্জামান সোহেল।

এ মাঠ দিবসে ইউনিয়নের ৬০ জন কৃষক অংশগ্রহণ করেন। পরে ইউনিয়নের সফল ৮ জন কৃষকের মাঝে নগদ অর্থ সহ পাট কাটার বিভিন্ন সরঞ্জামাদী বিতরণ করা হয়।  

বাংলাদেশ পাট গবেষলা ইনস্টিউিটের মহাপরিচালক কৃষিবিদ ড. মো.আবদুল আউয়াল বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার কৃষকদের বাঁচিয়ে রাখতে সব ধরনের সহায়তা করে যাচ্ছে। ধান আমাদের প্রধান ফসল। তাই বোরো ধান আবাদের পর ওই জমিতে পাট চাষ করে পরবর্তিতে আবার ওই জমিতেই আমন ধান আবাদ করতে হবে। একই জমিতে তিনটি ফসল আবাদ করলে কৃষকরা লাভবান হবেন। পাট চাষ করতে বিনামূল্যে বীজ দেওয়া সহ যত ধরনের সহযোগীতা দেওয়া হবে। আপনারা বেশী বেশী করে পাট চাষ করবেন। হারিয়ে যাওয়া সোনালী আঁশ পাটকে আমরা আবার ফিরিয়ে আনবো।





এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top