নালিতাবাড়ীতে চোর ধরে একলক্ষ টাকা পুরস্কার পেলো মোশারফ

মো: হারুন অর রশিদ | প্রকাশিত: ২১ জুলাই ২০২৩ ০২:১৫; আপডেট: ৫ মার্চ ২০২৪ ০০:৫৬

ছবি: শেরপুর ট্রিবিউন

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় ট্রান্সফরমার চোর চক্রের সদস্যকে ধরে লাখ টাকা পুরস্কার পেলো এক যুবক। পুরস্কার প্রাপ্ত ঐ যুবকের নাম মোশারফ হোসেন। সে উপজেলার রূপনারায়নকুড়া ইউনিয়নের সিংগুয়ারপাড় গ্রামের বাসিন্দা।

বৃহস্পতিবার (২০ জুলাই) নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষ মেঘমালায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খৃষ্টফার হিমেল রিছিলের সভাপতিত্বে আয়োজিত এক মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কারের টাকা তুলে দেন শেরপুরের জেলা প্রশাসক সাহেলা আক্তার।

জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবত উপজেলায় আশঙ্কাজনকহারে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার ও সেচপাম্পের মোটর চুরি হচ্ছিল। কোনভাবেই চোরের উপদ্রব থেকে সেচপাম্পের মালিকরা রেহাই পাচ্ছিলোনা। পুলিশ সহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কড়া নজরদারির মধ্যেও একের পর এক ট্রান্সফরমার চুরি হচ্ছিলো। পরে চুরের উপদ্রব থেকে কৃষক ও সেচ মালিকদের বাঁচাতে এক অভিনব ঘোষণা দেন উপজেলা চেয়ারম্যান মো: মোকছেদুর রহমান লেবু। গত বছরের জুলাই মাসে তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হেলেনা পারভীনের সভাপতিত্বে উপজেলা মাসিক আইনশৃঙ্খলা সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান মো: মোকছেদুর রহমান লেবু পরিষদের পক্ষ থেকে ট্রান্সফরমার চোর ধরতে এক লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেন। পরে মাঝে কিছুদিন ট্রান্সফরমার চুরি বন্ধ থাকলেও গত বোরো মৌসুমে পুনরায় আশঙ্কাজনকহারে ট্রান্সফরমার ও মোটর চুরি বৃদ্ধি পায়। এতে গত এক বছরে অন্তত অর্ধশত ট্রান্সফরমার ও মোটর চুরি হয়ে যায়।

এদিকে গত ২৩ মার্চ ভোররাত তিনটার দিকে উপজেলার রুপনারায়নকুড়া ইউনিয়নের সিঙ্গুয়ারপাড় গ্রামের মাহফুজ হাজীর পুকুর সংলগ্ন বৈদ্যুতিক খুঁটিতে উঠে চোর চক্রের সদস্য রাসেল। এসময় প্রতিবেশি মোশারফ প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাইরে এলে সে চোর দেখে চিৎকার করে। চিৎকার শোনে রাসেল খুঁটি থেকে নিচে লাফ দিয়ে পড়ে যায়। তাৎক্ষণিক মোশারফ চোরকে জাপটে ধরে চিৎকার শুরু করলে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে গণধোলাই দিয়ে রাসেলকে বেঁধে রাখে। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সকাল দশটার দিকে আহত রাসেলকে উদ্ধার করে গ্রেফতার করে।

উপজেলা চেয়ারম্যান মো: মোকছেদুর রহমান লেবু বলেন, আশঙ্কাজনক হারে ট্রান্সফার চুরিতে কৃষকদের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছিলো। চোর ধরতে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে এক লাখ টাকা পুরষ্কারের ঘোষণা দিয়েছিলাম। তাই আজ আনুষ্ঠানিকভাবে জেলা প্রশাসক ম্যাডামের উপস্থিতিতে মোশারফ নামের ওই ব্যাক্তিকে পুরষ্কারের নগদ এক লক্ষ টাকা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। আগামী দিনেও যদি কেউ ট্রান্সফরমার চোর ধরতে পারে তাকেও আমরা এক লক্ষ টাকা দিয়ে পুরস্কৃত করবো। এই ধরনের পুরস্কার দেওয়া আমাদের চলতেই থাকবে।

পুরস্কার পাওয়া মোশারফের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নগদ এক লক্ষ টাকা পেয়ে খুব ভাল লাগছে। আমি কল্পনাও করিনি এভাবে কেউ টাকা পেতে পারে। আমি উপজেলা চেয়ারম্যানকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শেরপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুকতাদিরুল আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব এসএম. মোস্তফা কামাল, নালিতাবাড়ী পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব আবু বক্কর সিদ্দিক, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তৌফিকুর রহমান, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. ফয়জুর রহমান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল ওয়াদুদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ঈফফাত জাহান তুলি সহ উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও সাংবাদিকবৃন্দ।





এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top