ঝিনাইগাতিতে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের চেষ্টা

শেরপুর ট্রিবিউন | প্রকাশিত: ৪ মার্চ ২০২১ ১৮:১৩; আপডেট: ৪ মার্চ ২০২১ ১৮:১৬

প্রতীকী ছবি।

শেরপুরের ঝিনাইগাতি উপজেলার হাঁসলীগাও গ্রামে স্থানীয় এক ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যের (ওয়ার্ড মেম্বার) বিরুদ্ধে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভূক্তভোগী গার্মেন্টস কর্মী ইতিমধ্যে মামলা দায়েরও করেছেন

গত ২ মার্চ কয়েকজন মানবাধিকার কর্মীর সহযোগিতায় ঝিনাইগাতি থানায় মামলাটি দায়ের করা হয় বলে ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোঃ সারোয়ার হোসেন জানান।
মামলার আসামি ৭ নং মালিঝিকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের ০৪ নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃ নিজামউদ্দীন (৩৮)। মামলা দায়েরের পর থেকে সে পলাতক রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মামলার বাদী ওই এলাকার বাসিন্দা এবং গাজীপুরের এক গার্মেন্ট ফ্যাক্টরিতে কাজ করেন। সম্প্রতি সে এলাকায় জাতীয় পরিচয়পত্র (স্মার্ট কার্ড) দেওয়া শুরু করে নির্বাচন কমিশন। ইউপি মেম্বার ভূক্তভোগীকে স্মার্ট কার্ড দেওয়ার কথা বলে গ্রামে আসতে বলে এবং তার বাড়িতে এসে নিয়ে যেতে বলে।

তারপর, গত ২১ ফেব্রুয়ারী সকাল সাড়ে ৯টার দিকে স্থানীয় ওই মেম্বারের বাড়িতে স্মার্টকার্ড নিতে গেলে ঘরে আসতে বলে এবং বাড়িতে কেউ না থাকায় ঘরের দরজা বন্ধ করে দিয়ে তার সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রস্তাব দেয়। তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মুখ চেপে ধরে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে এবং তার স্পর্শকাতর স্থানে একাধিকবার হাত দেয়। ওই সময় মেয়েটি চিৎকার করলে দরজা খোলে দেয় এবং টাকা দিতে চায়। পরবর্তীতে নানাভাবে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোঃ সারোয়ার হোসেন বলেন, "মামলটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মামলার পর থেকে আসামি পলাতক রয়েছেন"।





এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top