উরফা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূরে আলম তালুকদার ভুট্টোর বিরুদ্ধে এ অভিযোগ আনা হয়েছে।

নকলায় ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক বঙ্গবন্ধুর শাসনামলের ইতিহাস মুছে ফেলার অপচেষ্টার অভিযোগ

সাদেকুর রহমান বাবু | প্রকাশিত: ১৬ এপ্রিল ২০২২ ০১:৫৯; আপডেট: ২৪ মে ২০২২ ১২:৩৯

ছবিঃ শেরপুর ট্রিবিউন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাসনামলের প্রণীত সংবিধান, বিভিন্ন প্রশাসনিক নির্দেশিকা সহ, অন্যান্য বিষয় সারাদেশে ইতিহাসের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে সংরক্ষণ করা হয়। অথচ যখন সারাদেশে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপিত হচ্ছে, ঠিক সেই মূহুর্তেই শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার ৩নং উরফা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূরে আলম তালুকদার ভুট্টো ইউনিয়ন পরিষদের অনার বোর্ড থেকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে এবং স-জ্ঞানে বঙ্গবন্ধুর শাসনামলের চেয়ারম্যানের নাম মুছে দিয়েছেন।

সর্বজন শ্রদ্ধেয় জনাব মোঃ আবু বকর সিদ্দিক (মাস্টার) ০১ মার্চ ১৯৭২ সাল থেকে ০৯ ফেব্রুয়ারী ১৯৭৪ সাল পর্যন্ত ৩নং উরফা ইউনিয়নের নির্বাচিত চেয়ারম্যান (রিলিফ) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পর উক্ত ইউনিয়নের ১ম চেয়ারম্যান হিসেবে সফলতার সাথে উনার উপর অর্পিত দায়িত্ব সমাপ্ত করেন। তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে একজন বর্ষীয়ান সংগঠক এবং নকলা নালিতাবাড়ী আসনের সাবেক এমপি মরহুম মিজানুর রহমান ও সাবেক ধর্মমন্ত্রী আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মতিউর রহমান এর ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও রাজনৈতিক সহযোদ্ধা। ষাট ও সত্তরের দশকে তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় থেকে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক হিসেবে কাজ করেন। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু সরকার ১৯৭৪ সালে প্রাথমিক শিক্ষাকে জাতীয়করণ করলে তিনি শিক্ষকতার মহান পেশাকেই ব্রত হিসেবে নিয়ে প্রশাসনিক দায়বদ্ধতার জন্য সক্রিয় রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়ান। কিন্তু নিভৃতে থেকেও তিনি আওয়ামী রাজনীতির সাথেই ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন। তিনি একজন স্বনামধন্য প্রধান শিক্ষক হিসেবে যার অসংখ্য শিক্ষার্থী দেশে-বিদেশে নানান ক্ষেত্রে তাদের মেধার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন। তাহার ২য় ছেলে এফ. এম. কামরুল আলম রঞ্জু,তিনি নকলা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন, বর্তমানে নকলা উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে জয়লাভ করার পর উরফা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান নূরে আলম তালুকদার ভূট্টো শুধুমাত্র রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদের নতুন অনার বোর্ড তৈরি করে চেয়ারম্যানদের নামের তালিকা থেকে সাবেক চেয়ারম্যান (রিলিফ) আবু বকর সিদ্দিক (মাস্টার) এর নামের সাথে আগের দুইজন সহ্, মোট তিন জন চেয়ারম্যানের নামও বাদ দিয়েছেন। এর মাধ্যমে বর্তমান চেয়ারম্যান শুধু আবু বকর সিদ্দিক এর নামই মুছেন নি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময়ের ইতিহাসকেই ইউনিয়ন পরিষদ থেকে মুছে দিয়েছেন। বিষয়টি নামের তালিকা থেকে বাদ পড়া সাবেক চেয়ারম্যান ও তাঁদের পরিবারবর্গে জন্যও অসম্মানজনক ও অনৈতিক বলে মনে করছেন এলাকাবাসী। এ নিয়ে ইউনিয়নের জীবিত বীর মুক্তিযোদ্ধারা বিষ্ময় প্রকাশ করেছেন এবং জনসাধারণের ভিতরেও চাপা ক্ষোভ বিরাজমান। বিষয়টি নিয়ে গত ৪ এপ্রিল নকলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং শেরপুর জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন তার পরিবার। ৩নং উরফা ইউনিয়নবাসী এ বিষয়ে প্রশাসনের দ্রুত ইতিবাচক পদক্ষেপ প্রত্যাশা করছেন।





এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top